সফল হতে হলে যে অভ্যাসগুলো না থাকলেই নয়!

সফলতার কোনো সহজ কিংবা উপভোগ্য ব্যাপার নেই। আপনি সফল হতে চাইলে যে রাস্তাটা আপনাকে পার হতে হবে সেটি যতটা কঠিন, ঠিক ততটাই কর্কশ। রাস্তায় কখনো মুখ থুবড়ে পড়বেন, কখনো কোনো পথ আদতেই খুঁজে পাবেন না। তবে খানিকটা সদিচ্ছায় এই দুর্গম পথকেও একটু হলেও মসৃণ করে নিতে পারেন আপনি। কী করে? প্রতিদিনের কিছু অত্যন্ত সহজ অভ্যাস আয়ত্বের মাধ্যমে। চলুন জেনে আসা যাক সেই অভ্যাসগুলো, যেগুলো আপনাকে সফল হতে সাহায্য করবে।

স্বাভাবিক কাজগুলোকে স্বাভাবিক রাখুন

ঠিক সময়ে ঘুমিয়ে পড়ুন; Source: Healthline

সারারাত কাজ করে, ঘুমকে জলাঞ্জলি দিয়ে, খেয়ে না খেয়ে, স্বাভাবিক জীবনকে পাশ কাটিয়ে সফল হওয়াটা কেবল কঠিনই নয়, সেইসাথে এই সাফল্যকে ধরে রাখাটাও অসম্ভব। আর যা-ই হোক, নিজের স্বাভাবিক জীবনকে ব্যহত করবেন না। যেটুকু না হলেই নয় সেটুকু বাদ দিয়ে শরীর ও মনকে বাড়তি চাপ দিয়ে সাফল্য অর্জন করলেও সেটা দীর্ঘমেয়াদী হবে না। তাই প্রতিদিনের কাজগুলো স্বাভাবিক নিয়মেই করুন। মনে রাখুন, প্রতিদিন আমরা ২৪ ঘন্টা পাই। সঠিক ও পরিকল্পিত ব্যবহারে স্বাভাবিক জীবন বজায় রেখেও তাই কাজ সম্পন্ন করাটা সম্ভব।

নতুনের সাথে পরিচিত হন

নতুন যেকোনো ব্যাপার আপনাকে আরো ভালো করে ভাবতে সাহায্য করবে। তাই, প্রতিনিয়ত নতুন কিছু শিখুন। আপনার মস্তিষ্ক চর্চার মধ্যে থাকবে এতে করে। পাশাপাশি, নতুন যেকোনো চিন্তার প্রতি নিজের মনকে ইতিবাচক রাখুন।

ভালোকে খুঁজুন

চারপাশে ভালোলাগার মতো ব্যাপারগুলোকে খুঁজে বের করুন; Source: The Daily Beast

চারপাশে নানারকম ঘটনা ঘটছে এবং ঘটবে। এই ঘটনাগুলোর মধ্যে যেমন আছে ভালো, তেমনি আছে খারাপ ব্যাপারও। প্রতিদিন অন্তত নিজের চারপাশে ঘটে যাওয়া ভালো কিছু ঘটনাকে আলাদা করে খেয়াল করুন। এতে করে আপনার মন ভালো থাকবে, সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা পাবেন।

চারপাশের পরিস্থিতিকে উন্নত করুন

এটা একবারেই করা সম্ভব নয়। তবে, একটু একটু চেষ্টা করলে প্রতিদিনের চেষ্টায় একটা সময় হয়তো আপনার চারপাশের পরিস্থিতিও সুন্দর হয়ে উঠবে। আর একজন মানুষের সাফল্যের পেছনে তার চারপাশের পরিস্থিতিও যে অনেক বেশি অবদান রাখে সেটা তো নিশ্চয় মানবেন।

নিজের জন্য সময় বের করুন

একজন মানুষ সবসময় প্রোডাকটিভ কাজ করবে এমনটা সম্ভব না। ভালো কাজের জন্য দরকার পরে অবসরেরও। নিজেকে তাই কিছু সময় অবসর দিন। নিজেকে উপহার দিন, ভালোবাসুন। পরবর্তী কাজের জন্য এটা বেশ দরকারী।

সম্পর্কের যত্ন নিন

সম্পর্ককে সময় দিন; Source: Addiction Treatment Rehab

সফল ব্যক্তিদের দিকে তাকালে দেখতে পাবেন যে, তাদের অধিকাংশই ব্যক্তিগত জীবনের প্রতি অসম্ভব যত্নবান। আপনি নিশ্চয় আপনার পুরোটা কাজে দিতে পারবেন না, যদি আপনার ব্যক্তিগত জীবন শান্ত, সফল ও সুখের হয়। আর ব্যক্তিগত জীবন গড়ে ওঠে ব্যক্তিগত সম্পর্কের ভিত্তিতে। তাই ব্যক্তিগত সম্পর্কগুলোর দিকে বেশি মনোযোগ দিন। সফলতার পথে আরো একধাপ এগিয়ে যাবেন আপনি।

কাজের মূল্য নির্ধারণ করুন

মানুষভেদে প্রত্যেকের জীবনে একই কাজের মূল্য ভিন্ন ভিন্ন হয়। তাই আপনার জীবনে কোন কাজটির মূল্য সবচাইতে বেশি সেটা নির্ধারণ করে ফেলুন। খুব মনোযোগ দিয়ে কাজটি করুন। কারণ এর উপরেই অনেকটা নির্ভর করে আপনি পরবর্তী জীবনে কতটা সফল হবে।

নিজেকে সফল হিসেবে কল্পনা করুন

কাজ শেষ করার পর আপনার কেমন অনুভূতি হবে তা ভাবুন; Source: wddty.com

ধরুন, কোনো একটি কাজ শুরু করেছেন আপনি। অবশ্যই সেটি আপনি ভালো করেই সম্পন্ন করবেন। তবে এই কাজটি আরো সহজ হবে যদি কাজের সময় চোখ বন্ধ করে এর শেষের সময়টুকুকে চিন্তা করতে পারেন। কেমন অনুভব করছেন? কাজটি সফলভাবে সম্পন্ন করার পর কেমন লাগবে আপনার? অনুভূতিটুকুকে আকড়ে ধরে কাজ চালিয়ে যান। নিজের সেরাটাই দিতে পারবেন আপনি!

অভ্যাসগুলোকে অবিচ্ছেদ্য অংশ বানিয়ে নিন

এই অভ্যাসগুলোকে একবার বা দুইবার ব্যবহার করার জন্য নয়, বরং বারবার অনুশীলন করুন। এতে করে একটা সময় নিজেকে বাড়তি কোনো চিন্তার সুযোগ না দিয়েই বা বাড়তি চাপ ছাড়াই সফলতার পথে এগিয়ে যেতে সাহায্য করা এই অভ্যাসগুলোকে নিজের অবিচ্ছেদ্য অংশ করে নিতে সক্ষম হবেন।

Comments
Comments

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.