ব্যবসা শুরুর দশটি দরকারি টুলস

নতুন কোনো ব্যবসা শুরু করাটা বরাবরের মতোই একটি চ্যালেঞ্জিং বিষয়। হোক সেটা বড় কিংবা ছোট। আপনি চাইলেই শুরু করতে পারবেন। কিন্তু প্রয়োজনীয় রিসোর্সের জন্য সেটা হয়তো মাঝপথেই থেমে যেতে পারে। তাই যদি আপনার আপনার ব্যবসা শুরু করার আগে সঠিক টুলস অথবা রিসোর্সগুলো ভালোভাবে দেখেন এবং প্রয়োজনীয় তথ্যগুলো যদি আপনি সেখান থেকে সংগ্রহ করার মাধ্যমে আপনার ছোট কিংবা বড় ব্যবসাটিকে এগিয়ে নিয়ে যান, তাহলে খুব সহজেই আপনি আপনার লক্ষ্যে পৌঁছতে পারবেন। আপনাদের এবার কিছু টুলস আর রিসোর্সের সাথে পরিচয় করিয়ে দেবো।

১) Square Up

আপনি যদি আপনার ব্যবসাকে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে স্থানান্তরিত করতে চান এবং নতুন জায়গায় যদি আপনার ইন্টারনেট কানেকশনের প্রয়োজন হয় তাহলে ‘Square Up’ আপনার জন্য অসাধারণ একটি সফটওয়্যার। এটি মূলত আপনার ক্রেডিট কার্ড প্রসেস করার ক্ষেত্রে কাজ করবে। অফলাইন অথবা অনলাইনে আপনি এটি দিয়ে কাজ করতে পারবেন।

২) Aweber

আপনি যদি ইমেইল মার্কেটিং করতে চান, তাহলে ‘Aweber’ আপনাকে আপনার ক্লায়েন্টদের ফ্রেশ আপডেটেড সাপোর্ট দেয়া সহ ইমেইল লিস্ট তৈরি করে তাদের সেন্ড করার ব্যাপারে সাহায্য করবে।

৩) Asana

একসাথে অনেকের প্রজেক্ট মেনেজমেন্টের জন্য ‘Asana’ একটি অসাধারণ টুল। আপনি যদি আপনার স্টোরেজ, ডক ফাইল সহ আপনার ক্লায়েন্ট এবং ওয়ার্কারদের সাথে সম্মিলিতভাবে একত্রে কাজ করতে চান, তাহলে এই টুলটি আপনার জন্য।

৪) Virtual Hosted PBX

আপনার যদি পিবিএক্স ফোন সিস্টেম প্রয়োজন হয় এবং আপনি যদি একজন সেরা প্রোভাইডার চান, তাহলে এই টুলটি আপনাকে সাহায্য করবে। আপনি এর মাধ্যমে বিভিন্ন প্রোভাইডারদের রিভিউ চেক করতে পারবেন এবং আপনার সেরা পছন্দটি বেছে নিতে পারবেন।

আপনি যদি থার্ড পার্টি থেকে কোনো পেমেন্ট নিতে চান অথবা যদি কোনো প্রোডাক্ট বিক্রির জন্য থার্ড পার্টির কাছে কোনো একটি রেজিস্ট্রি ফোরাম পাঠাতে চান, তাহলে এই ওয়েব অ্যাপটি আপনাকে সহজেই তা তৈরি করে দিতে সাহায্য করবে।

৬) Stratup Stash

আপনি যদি আপনার ছোট ব্যবসার জন্য ব্যবহৃত সবগুলো ব্যবসায়িক টুলস এবং সফটওয়ারকে সম্মিলিতভাবে পেতে চান, তাহলে ‘Startup Stash’ আপনার জন্য অসাধারণ একটি টুল। মার্কেটিং, কাস্টমার সাপোর্ট এবং এনালাইসিস করার জন্য আপনার যে ধরনের ব্যবসায়িক ছোট-বড় টুল প্রয়োজন, তা আপনি তাদের ডাইরেক্টরিতে পাবেন।

৭) Hootsuite

আপনি আপনার সামাজিক মাধ্যমগুলোকে মেনেজ করতে পারবেন এই টুল দ্বারা। আপনি যদি চান যে আপনার সবগুলো সামাজিক মাধ্যম একসাথে রাখতে চান এবং আপনার ক্লায়েন্ট ও প্রোভাইডারদের কাছে ছড়িয়ে দিতে চান, তাহলে এটি আপনার জন্য।

৮) F6s

বিভিন্ন ফান্ডিং সুবিধার জন্য এই ওয়েব টুলটি আপনি ব্যবহার করতে পারেন। বিভিন্ন স্টার্টআপ, ফাউন্ডারদের ফেসবুক গ্রুপ সহ প্রয়োজনীয় জিনিস এখান থেকে পাবেন। শুধু আপনাকে এজন্য কিছুটা রিসার্চ করতে হবে।

৯) Echosign

আপনার ছোট বিজনেসটিকে ছড়িয়ে দিতে আপনি ব্যবহার করতে পারেন এই মাধ্যমটি। আপনার বিজনেস প্রসেসিংয়ের জন্য এটি আপনার ডকুমেন্টগুলোকে eSign ক্লাউড যুক্ত করে দিবে, যাতে করে আপনি আপনার ব্যবসা চালানোর গতি আরো পাঁচ গুণ বৃদ্ধি করতে পারেন।

১০) AngelList

এটি আপনাকে বিভিন্ন প্রোডাক্ট সম্পর্কে অ্যানালাইসিসের ফলাফল দেয়া সহ সম্ভাব্য ইনভেস্টর এবং চালু হওয়া চাকরির ব্যাপারে সকল খবর প্রদান করবে।

Comments